ঢাকা, সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ১০ মহররম ১৪৪৪

পরীমনির অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ



পরীমনির অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ

এইসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনিকে ‘ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ’ তদন্ত করছে পুলিশ। ফেসবুকে দেয়া তার স্ট্যাটাসটি আমলে নিয়ে অভিযোগগুলোর তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সদর দফতরের মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের এআইজি মো. সোহেল রানা।

রবিবার (১২ জুন) রাতে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেয়া পরীমনির স্ট্যাটাস পুলিশ সদর দফতরের নজরে এসেছে। বিষয়টি তদন্ত করতে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা কাজ করছেন।

এর আগে রবিবার সন্ধ্যা ৭টা ৫৩ মিনিটে ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনি ‘আমাকে রেপ এবং হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে’ অভিযোগ করে নিজের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তাকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার বিচার দাবি করেন তিনি।

পরীমণির স্ট্যাটাসটি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে রাত ৯টার দিকে বনানীতে অভিনেত্রীর বাসায় যায় বনানী থানা পুলিশ। সেখানে গিয়ে ফেসবুকে দেয়া তার স্ট্যাটাসের বিষয়ে এবং তার করা অভিযোগের বিষয়টি শুনেছেন পুলিশ সদস্যরা। পরীমনির অভিযোগগুলো শোনার পর প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নিতে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। যদিও এ বিষয়ে লিখিতভাবে থানায় কোনো অভিযোগ করেননি পরীমনি।

এ ঘটনা নিয়ে রাত ১১টার দিকে নিজের বনানীর বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ঘটনার প্রকাশযোগ্য বিস্তারিত জানান পরীমণি। তিনি জানান, বুধবার রাতে উত্তরার বোট ক্লাবে ঘটনাটি ঘটে। নাসির উদ্দিন মাহমুদ নামে একজন তাকে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে এ ঘটনা ঘটাতে চেয়েছিলেন। একসময় ওই ব্যক্তি উত্তরা ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। একটি সিনেমার মিটিংয়ের কথা বলে অমি নামে এক পূর্বপরিচিত তাকে সেদিন রাতে বোট ক্লাবে নিয়ে যাওয়া হয়।


   আরও সংবাদ