ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

উত্তপ্ত চীন-তাইওয়ান: একের পর এক ফ্লাইট বাতিল



উত্তপ্ত চীন-তাইওয়ান: একের পর এক ফ্লাইট বাতিল

চীন ও তাইওয়ানের মাঝে উত্তেজনা বাড়ছে। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফরকে ঘিরে উত্তপ্ত দুই দেশ। তাইওয়ান প্রণালীতে সামরিক মহড়া চালিয়েছে চীন। এরই জেরে ফ্লাইট চলাচল বাতিল করেছে এশিয়ার একাধিক এয়ারলাইন্স। কোরিয়ান, এশিয়ানা ও সিঙ্গাপুরের মতো এয়ারলাইন্স তাদের বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল করেছে। ফেলে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। 

গত মঙ্গলবার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফরের কারণে দ্বীপটিকে ঘিরে সামরিক মহড়া শুরু করে বেইজিং। সেকারণে ঝুঁকি এড়াতে ফ্লাইট বাতিলসহ রুট পরিবর্তন করছে বিমান সংস্থাগুলো। ৬টি ‘বিপদ অঞ্চল’ এড়িয়ে চলতে বেইজিং সতর্ক করার পর এ পদক্ষেপ নেওয়ার খবর পাওয়া গেলো। যেখানে পিপলস লিবারেশন আর্মি ‘সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতা’ সমুন্নত রাখতে মহড়া চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে চীন।

দক্ষিণ কোরিয়ার কোরিয়ান এয়ার তাইওয়ানে তাদের শুক্রবার (৫ আগস্ট) ও শনিবারের (৬ আগস্টের) যাত্রা বাতিল করেছে। এশিয়ানা শুক্রবারের ফ্লাইট বাতিল করেছে। সিঙ্গাপুর ও তাইপের রুটে চারটি ফ্লাইট বাতিল করেছে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে শিডিউলে আরও পরিবর্তন আনার কথাও জানিয়েছে তারা। তবে জাপানের এএনএ ও জাপান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট শিডিউলে পরিবর্তন আনেনি।

চীনের কঠোর হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও তাইওয়ান সফর করেন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। বুধবার (৩ আগস্ট) তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ন্যান্সি পেলোসি। এসময় তিনি বলেন, ‘বন্ধুত্বের খাতিরে আমরা তাইওয়ানে এসেছি’। এই অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠাই তার লক্ষ্য। তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকে তিনি ওয়াশিংটনের সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রাখারও কথা জানান।

পোলেসির তাইওয়ান সফরে ক্ষোভে ফেটে পড়ে চীন। কড়া হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের প্রতিবাদে বেইজিং-এ নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকোলাস বার্নসকে তলব করে দেশটি। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২ আগস্ট) তাইওয়ানের এয়ার ডিফেন্স জোনে চীনের ২১টির মতো যুদ্ধবিমান টহল দেয় বলে এমন দাবি করে তাইপে। এর আগে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, তাইওয়ানের উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিম এবং উত্তরপূর্বাঞ্চলে যৌথভাবে আকাশ ও সমুদ্রে চীনের মহড়া চলবে। তাইওয়ান প্রণালীতে দীর্ঘ পাল্লার ‘লাইভ ফায়ারিং’ করা হবে।


   আরও সংবাদ