Home / প্রবাস খবর / ভারতে বাংলাদেশী তরুণীকে ধর্ষণ, অভিযোগের পর আটক তরুণীর বিরুদ্ধেও মামলা

ভারতে বাংলাদেশী তরুণীকে ধর্ষণ, অভিযোগের পর আটক তরুণীর বিরুদ্ধেও মামলা

নিউজ ডেস্ক : ভারতের পেট্রাপোল সীমান্তের নরহরিপুর এলাকায় মঙ্গলবার রাতে দালালদের খপ্পরে পড়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক বাংলাদেশি নারী।

বাংলাদেশের নড়াইল জেলার মীরজাপুরের বাসিন্দা ওই তরুণী গত মাসে স্বরূপনগর সীমান্ত দিয়ে দালাল মারফত চোরাপথে ভারতের বনগাঁয় প্রবেশ করেন। সেখান থেকে তিনি চলে যান গুজরাটের সুরাটে। তবে কাজের পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় দেশে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন। সে কারণে আবারও বনগাঁয় ফিরে যান তিনি। ভারতীয় পুলিশ সূত্রে এমনটি জানা গেছে।

এদিকে, কোনও বৈধ কাগজপত্র না থাকায় সীমান্ত পার করানোর জন্য বনগাঁর নরহরিপুরের দুই দালাল মোশারেফ মণ্ডল ও তপন বিশ্বাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ওই তরুণী। সীমান্ত পার করে দেয়ার জন্য চুক্তিও হয় তাদের মধ্যে।

কয়েক দিনের মধ্যেই তাকে চোরাপথে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়ার কথা জানানো হয়। এই সময়টায় তিনি ওই দালালদের আশ্রয়েই ছিলেন। সেই সুযোগেই ওই তরুণীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে ওই দুই দালালের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, ওই ঘটনায় দুই অভিযুক্ত খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, দুই অভিযুক্তই বাংলাদেশে চোরাচালান কারবারের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম থেকে জানা যায়, পেট্রাপোল থানায় গিয়ে পুরো ঘটনা জানান ওই নারী। এরপরেই ওই বাংলাদেশি তরুণীকে আটক করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পাশাপাশি, চোরাপথে ভারতে প্রবেশের অপরাধে ওই তরুণীর বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের হয়েছে। তাকে বনগাঁ মহাকুমা আদালতে নেয়ার কথা রয়েছে।

তবে অভিযুক্ত ওই দুই দালালকে এখনও আটক করা সম্ভব হয়নি।

About দেশ খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow