Home / এক্সক্লুসিভ / লক্ষ্মীপুর যুবলীগ বেপরোয়া!

লক্ষ্মীপুর যুবলীগ বেপরোয়া!

স্টাফ রিপোর্টার: লক্ষ্মীপুরে কয়েকজন নেতাকর্মীর ক্ষমতার দাপটে প্রশ্নবিদ্ধ জেলা যুবলীগ। সম্প্রতি প্রকাশ্যে ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের হুমকি, বৈদ্যুতিক সংযোগের নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠে যুবলীগের মোঃ তফসির আহম্মদে, মোঃ কামাল পাটোয়ারী ও সেলিম মাঝি’র বিরুদ্ধে। প্রতারণার দায়ে কুশাখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল পাটোয়ারীকে র‌্যাব-১১ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে।

সূত্র জানায়, তফছির আহমেদ নামে এক যুবলীগ নেতা প্রকাশ্যে সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন মুশু পাটওয়ারীকে মারধরের হুমকি দেয়। গত ০৯ সেপ্টেম্বর ওই ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যুবলীগ নেতা প্রকাশ্যে এ ঘটনা ঘটায়। তফছির একই ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মুশু পাটোয়ারী সদর থানায় তফছিরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ১০ সেপ্টেম্বর রাতে।

এর আগে গত ৫ সেপ্টেম্বর আবিরনগর গ্রামে একটি সালিসী বৈঠকেও যুবলীগ নেতা তফছির ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর চওড়া হয়। এর আগে সদরের তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম মাঝি বৈদ্যুতিক সংযোগের নামে ২৬০ পরিবারের কাছ থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। ২ বছর আগে এ টাকা নিলেও এখনো বিদ্যুৎ পৌঁছেনি তেওয়ারীগঞ্জের আন্দারমানিক গ্রামের ওইসব পরিবারে। এসব অভিযোগে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।

এদিকে সদর উপজেলা কুশাখালী ইউনিয়নের ঝাউডগি গ্রামে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ দেয়ার নামে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে ৬০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মো. কামাল পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে। পরে ১৩ সেপ্টেম্বর প্রতারণা মামলায় র‌্যাব-১১ তাকে গ্রেফতার করে।

এদিকে যুবলীগ নেতা তফছির আহম্মেদ বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান মুশু পাটোয়ারী আমাকে কোন বরাদ্দ দেয় না। উনার কাছে কোন বরাদ্দ চাইলে তিনি কর্ণপাত করেন না। এজন্য তার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছে।

তবে ইউপি চেয়ারম্যান মুশু পাটোয়ারী বলেন, যুবলীগ নেতা তফছির আমার কাছে অন্যায় আবদার করে। সরকার বরাদ্দ দেয় অসহায় মানুষের জন্য, আমি যথাযথভাবে তা বন্টন করি। তফছিরকে বরাদ্দ না দেয়ায় সম্প্রতি একটি মারামারি ঘটনা মীমাংসা করতে গেলে ভূমি অফিসে প্রকাশ্যে তিনি আমাকে মারধরের হুমকি দেয়। এর আগে আবিরনগর জুগি বাড়ীর সামনে জায়গা-জমি পরিমাপের একটি সালিশি বৈঠকে প্রকাশ্যে সবার সামনে আমার সাথে অশালীন আচারণ করে তফসির। পরে আমি সদর থানায় জিডি ও সদর ইউএনওকে ঘটনাটি অবিহিত করেছি।

জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, ঘটনাগুলো শুনেছি। এ ব্যাপারে দলীয়ভাবে তদন্ত করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

লাহারকান্দি ইউনিয়নের যুবলীগের আহবায়ক মো:তফসির জানায়, আমার ভাইকে মশু চেয়ারম্যান মারধর করে পরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করি। যাহার নম্বর ২২৯৯।

এ ব্যাপারে সদর পশ্চিমের যুবলীগের আহবায়াক রুপম হায়াদার জানায়, কামালের বিরুদ্ধে বিদ্যুৎ প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের যে অভিযোগ উঠেছে ও তফসির ইউপি চেয়ারম্যান মুশুকে হুমকি -ধুমকি থানায় জিডি, দলীয়ভাবে তদন্ত করে অভিযোগ প্রমাণিত হলে দলের শৃংখ্লা ভঙ্গের দায়ে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, যুবলীগ নেতা তফছিরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ নিয়ে তফছিরের সঙ্গে কথা হয়েছে। ফের এ ধরণের কোন ঘটনা না ঘটানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টার: লক্ষ্মীপুরে কয়েকজন নেতাকর্মীর ক্ষমতার দাপটে প্রশ্নবিদ্ধ জেলা যুবলীগ। সম্প্রতি প্রকাশ্যে ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের হুমকি, বৈদ্যুতিক সংযোগের নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠে যুবলীগের মোঃ তফসির আহম্মদে, মোঃ কামাল পাটোয়ারী ও সেলিম মাঝি’র বিরুদ্ধে। প্রতারণার দায়ে কুশাখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল পাটোয়ারীকে র‌্যাব-১১ অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে। সূত্র জানায়, তফছির আহমেদ নামে এক যুবলীগ নেতা প্রকাশ্যে সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন মুশু পাটওয়ারীকে মারধরের হুমকি দেয়। গত ০৯ সেপ্টেম্বর ওই ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যুবলীগ নেতা প্রকাশ্যে এ ঘটনা ঘটায়। তফছির একই ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মুশু পাটোয়ারী সদর থানায় তফছিরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ…

Review Overview

About Alamgir Hossain

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow