Home / জেলার সংবাদ / লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল সড়কে রোগী ও পথচারীদের দুর্ভোগ

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল সড়কে রোগী ও পথচারীদের দুর্ভোগ

আলমগীর হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে উন্নয়ন কর্মকা- থেমে থাকায় জনদুর্ভোগ বাড়ছে।জেলা সদর হাসপাতালের কেন্দ্রবিন্দু সড়কের সংস্কারবিহীন পরে আছে দীর্ঘ দিন যাবৎ।
সড়কের গর্তের পানি ও হাসপাতালের পয়:নিস্কাশন ড্রেনের নোংরা পানিতে পথচারীদের দুর্ভোগ চরমে। জেলা পরিষদের নির্বাহী বাসভবনের সামনে থেকে পথচারীদের যাতায়াতের রাস্তাটি হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীরা । বৃষ্টি হলে সড়কে জমে থাকে হাটু পানি। এ জন্য এ সড়কে চলাচলকারীদের ভোগান্তির অন্তর থাকে না।


রাস্তাটি নির্বাহী বাসভবন থেকে রাস্তাটি লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের বাসভবন থেকে শুরু হয়ে হাসপাতালের জরুলি বিভাগের সামনে দিয়ে এস আর রোডে যুক্ত। দৈর্ঘ্য আনুমানিক ১০০ মিটার। দীর্ঘদিন যাবৎ হাসপাতালে আবাসিক এলাকার জেলা পরিষদের গেট ভেঙ্গে রাস্তার উপর পড়ে থাকলেও জেলা পরিষদের কর্মকর্তা /কর্মচারীদের নজরে এখনো চোখে পড়েনি। রাস্তাটি খানা খন্দে ভরা আবার এই শুস্ক মৌসুমেও সড়কে অল্প বৃষ্টিতে পানি জমে থাকে।
ভূক্তভোগীরা জানান, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের নির্বাহী বাসভবনের হওয়ার পর থেকে এ পযর্ন্ত সড়কটির সংস্কার কাজ হয়নি। অনেক আগেই এ সড়কের কার্পেটিং ওঠে গেছে, খানা-খন্দে ভরা। বর্ষা মৌসুমে সড়কটি থাকে পানিতে ডুবে।এসব কারণে এ সড়ক দিয়ে রিকশাও যেতে চায় না।
হাসপাতালের সামনে ঔষুধ দোকানদার হোসেন বলেন, তিন বছর ধরে রাস্তার উপরে জেলা পরিষদের গেট ভেঙ্গে অযন্ত্রে বেহাল অবস্থা পড়ে রয়েছে। রাস্তা দিয়ে হাঁটা যায় না। মানুষের কষ্টের কথা বিবেচনা করে সংস্কার করা প্রয়োজন।


চররুহিতা ইউনিয়ন থেকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রুবি সুলতানা নামে এক রোগী জানায়, তার সঙ্গে কথা হয় ভাঙ্গা রাস্তায় পাশে। তিনি জানান, বৃষ্টির সময় এ রাস্তা দিয়ে রোগীদের চলাচল করতে কষ্ট হয় ,গর্ববতী মায়েদের আনা নেওয়া খুবই কষ্ট কর।
জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান জানায় ,সরেজমিনে গিয়ে রাস্তাটি দেখে বরাদ্ধ দিয়ে নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে। হাসপাতালে দিঘির দক্ষিণ ও পশ্চিম পাশের রাস্তার নিমার্ণ কাজ চলছে । পরিবার পরিকল্পনার,সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে রোগীদের চলচল করতে সহজ হয়। রোগীদের যাতায়াতের কারণের দিঘির দুই পাশে উন্নয়ন মুখী কাজ চলছে।


জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভুইয়া বলেন,বিষয়টি নজরে আসছে অতিদ্রুত বরাদ্ধ দিয়ে জনস্বার্থে নির্মাণ কাজ করা হবে।

About Alamgir Hossain

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow