Home / অর্থনীতি / লক্ষ্মীপুরে রাতের আঁধারে মধ্যবিত্তদের ঘরের সামনে খাদ্য সামগ্রী!

লক্ষ্মীপুরে রাতের আঁধারে মধ্যবিত্তদের ঘরের সামনে খাদ্য সামগ্রী!

আলমগীর হোসেন : সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষদের সবাই সাহায্য করলেও বর্তমানে অসহায় হয়ে পরছে মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো। এই পরিবারগুলো কখনো কারো কাছে হাত পেতে সাহায্য চাইতে না পারায় অভাবে দিন পার করছে। কষ্টে দিন পার করলেও লজ্জায় সাহায্য চাইতে পারছে না অনেক পরিবার। আর কষ্টে থাকা এই মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে লক্ষ্মীপুরে পৌরসভার একজন কর্মকর্তা।

নিরবে মধ্যবিত্ত পরিবারের ঘরের দরজার সামনে রাতের আঁধারে খাদ্য সামগ্রী রেখে আসছেন তিনি। মহামারী নোভেল করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় গৃহবন্দি হয়ে থাকা সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষদের সাহায্যের পাশাপাশি এবার সমাজের মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

পৌর শহরের তার নিজ এলাকায় বিভিন্ন ঘরে ঘুরে খোঁজ নিয়ে কর্মহীন হয়ে পড়া মধ্যবিত্ত পরিবারের ঘরের দরজার সামনে খাদ্য সামগ্রী রেখে আসছেন।
 
এ বিষয়ে খবর নিয়ে জানা যায় যিনি রাতের আঁধারে মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্য দরজার সামনে খাদ্য সামগ্রী রেখে যান তিনি হচ্ছে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার স্যানিটারি  ইন্সপেক্টর ফজলে রাব্বানী।

করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাবের ফলে বর্তমান সময়ে সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষের পাশাপাশি মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো অসহায়ভাবে দিন পার করছে। কেননা শহরের সমস্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো কারো কাছে হাত পেতে সাহায্য চাইতে পারছে না। ফলে এই মধ্যবিত্ত অসহায় পরিবারগুলোর জন্য রাতের আধারে তাদের ঘরের দরজার সামনে খাবার রেখে চলে আসছেন।

মঙ্গলবার রাতে ফজলে রাব্বানী জানায় , এই পরিবারগুলো পরিস্থিতির শিকার। তারা যেন কোন লজ্জার মাঝে না পরেন সেই জন্য রাতের আধারে এই পরিবারগুলোর দরজার সামনে খাবার রেখে চলে আসি। খাদ্যগুলো কিন্তু কোনো দান অনুদান নয় এগুলো তাদের প্রাপ্য। আমার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে এ খাওয়ার গুলো মধ্যবিত্ত পরিবারে মধ্যে বিলি করা হচ্ছে। সমাজের উচ্চবিত্ত পরিবারগুলো আমার মতো এগিয়ে আসলে রাষ্ট্রে কোনো লোক না খেয়ে মরবে না।  

About Alamgir Hossain

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow