Home / অর্থনীতি / আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পে ৮% সার্ভিসচার্জ দিয়ে সদস্যদের ঋণ দেয় সরকার:সোলায়মান

আমার বাড়ি আমার খামার’ প্রকল্পে ৮% সার্ভিসচার্জ দিয়ে সদস্যদের ঋণ দেয় সরকার:সোলায়মান

আলমগীর হোসেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি:আমার বাড়ি আমার খামারপ্রকল্পের লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা সম্বনয়কারী মুহাম্মদ সোলায়মান বলেছেন,  দরিদ্র  দূরীকরণ প্রকল্প “আমার বাড়ি আমার খামার ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক গ্রামের দরিদ্র মানুষকে বছরে ২৫ কোটি টাকা ঋণ দিবে সরকার।গেলো ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ঋণ বিতরণ করা হয়েছিল ১৫ কোটি টাকা।যার ঋণ খেলাপির পরিমাণ প্রায় ৬৪% থেকে ২৭% নামিয়ে আনা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে দেশ খবর.কমের প্রতিনিধিকে সোলায়মান এ তথ্য জানান । 

সোলায়মান আরও বলেন,প্রকল্পের মাধ্যমে দরিদ্র মানুষকে সংগঠিত করে স্থায়ী তহবিল গঠন করা হয়। পরে তা আয়বর্ধক কাজে বিনিয়োগের মাধ্যমে তাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচন করা হচ্ছে। এ প্রকল্পের আওতায় সমিতির প্রতি সদস্য মাসে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা করে বছরে ২ হাজার ৪০০ টাকা এবং ২ বছরে ৪ হাজার ৮০০ টাকা সঞ্চয় করেন।

তিনি আরও বলেন, প্রকল্প থেকে প্রতি সদস্যকে সঞ্চয়ের বিপরীতে সর্বোচ্চ ৪ হাজার ৮০০ টাকা উৎসাহ বোনাস এবং সরকার প্রতি সমিতিকে বছরে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে ২ বছরে ৩ লাখ টাকা আবর্তক তহবিল দেয়া হয়।

এছাড়া সমিতির সদস্যরা নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী এ তহবিল থেকে ২০ হাজার থেকে বর্তমানে ১ এক লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ নিয়ে ক্ষুদ্র খামার করতে পারেন। প্রকপ্লের আওতায় সদস্যরা বিভিন্ন কৃষিজ ট্রেডে প্রশিক্ষণ পাচ্ছেন এবং ঘূর্ণায়মান পদ্ধতিতে ঋণ গ্রহণ ও পরিশোধের সুযোগ পাচ্ছেন প্রকল্প থেকে। এছাড়া প্রকল্পের সদস্যরা প্রকল্প থেকে পল্লি সঞ্চয় ব্যাংকের মাধ্যমে ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা উন্নয়ন ঋণ নিয়ে বিনিয়োগের সুয়োগ পাচ্ছে। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মাধ্যামে প্রকল্পটি কাজ চলমান রয়েছে।

অন্যন্য যে ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠানগুলো রয়েছে তাদের থেকে আমার বাড়ি আমার খামার ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মৌলিকভাবে ৩ টি পার্থক্য রয়েছে তা হলো অন্যান্য এনজিও সংস্থা সমিতির সদস্যদের ঋণ দিয়ে সাপ্তাহিক কিস্তি আদায় করে।আর আমরা মাসিক কিস্তিতে সদস্যদের ঋণ দি্চ্ছি।সাপ্তহিক কিস্তির যন্ত্রনা থেকে আমরা গ্রাহকদের মুক্তি দিচ্ছি।অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকে সদস্যরা ঋণ নিতে গেলে তারা বিভিন্ন শর্তের বিনিময়ে ঋণ দিয়ে থাকেন। যেমন স্টাম্প,ব্যাংক চেক,জিম্মদার,খতিয়ান,জমির দলিল, নেয়া হয়।সদস্যদের বিনা শর্তে ১০ টাকা রেভিনিউ স্টাম্প আমাদের নিজস্ব আবেদন ফরম পূরণ করে মাত্র ৫% ও ৮% সার্ভিস চার্জে ঋণ দিচ্ছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এপ্রতিষ্ঠানি। এক থেকে দুই দিনে মধ্যে ঋণ দেওয়া হয়।সার্ভিস চার্জের একটা অংশ সমিতির উন্নয়ন কাজে ব্যবহার করা হয়। এক বছর পযন্ত্র ঋণ খেলাপীদের সুযোগ দেয়া হয়।এ সময় কোনো প্রকার জরিমানা ও হয়রাণি করা হয় না।ঋণের পাশাপাশি সঞ্চয়ে সমিতির সদস্যদের উদ্বুদ্ধ করা হয়।এ স্লোগানটি হলো ক্ষুদ্র ঋণের পরিবর্তে ক্ষুদ্র সঞ্চয় মডেল, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর  মডেলটাই হচ্ছে ক্ষুদ্র সঞ্চয় মডেল যেখানে  সরকারি ব্যবস্থাপনায় একজন গরীব মানুষকে তার নিজস্ব পুজিঁ গঠনের সহয়তা করা হয়।সমিতির সদস্যদের প্রাথমিকভাবে ১০-১৫ হাজার টাকা পুজিঁ দিয়ে গরু,ছাগল,হাঁস,মুরগি,মাছ চাষের জন্য প্রত্যেক সদস্যদের খামার তৈয়ারীর কাজে উদ্বুদ্ধ করা হয়।

মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে পল্লী লেনদেন এর মাধ্যমে ডিজিটাল লেনদেন করছে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক।যেখানে সমতিরি ১-২ জন সদস্য করে ম্যানেজার নিয়োগে দেওয়া হয়েছে।এবং তাদেরকে সিম কার্ড দেওয়া হয়েছে।তারা পল্লী লেনদেন অ্যাপসের মাধ্যমে বিকাশের মত সদস্যদের থেকে মাসিক কিস্তির টাকা সংগ্রহ করে তাতক্ষণিক পোষ্টটিং করা হয়।ঋণ দেয়ার পর প্রত্যেক সদস্যদের খোঁজ খবর নেয়া হয় তারা ঋণের টাকাটা নিয়ে খামারের কাজে ব্যয় করেছে কিনা।আমাদের মুল লক্ষ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রত্যেক সদস্যদের কাজে লাগানো,বেকার সমস্যা সমাধান করা।

টাকাটা যদি সেই কাজে লাগায় আজকে না হোক কালকে তার ইনকাম হবে ,আয় হবে,তার আয় হলে তার উন্নয়ন ঘটবে।তার পরিবার উন্নত হবে।তার পরিবার উন্নত হলে অর্থনৈতিকভাবে সমাজ সমৃদ্ধ হবে।সমাজ অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ হলে দেশ সমৃদ্ধ  হবে।দেশ যদি অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ হয় জাতি হিসেবে ২০৪১ সালের আগেই উন্নত ও সমৃদ্ধ হয়ে বিশ্বের বুকে মাথা উ্ঁচু করে দাঁড়াতে পারবো।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন আমরা বাস্তবায়ন রুপ দিতে পারবো বলে আমি বিশ্বাস করি ।আমাদের এখানে যারা ঋণ গ্রহিতা তাদের মধ্যে শতকরা ৮০% লোকেই ঋণ নিয়ে স্বাবলম্বী হয়েছে।

আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্পের লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার স্বমন্বয়কারী, মুহাম্মদ সোলায়মান ২০০৭ সালে ঢাকা কলেজ থেকে এমএসএস পাশ করেন। চাঁদপুর শারস্তি উপজেলায় আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়কারী হিসেবে ২০১৩ সালে যোগদান করে বর্তমানে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

About Alamgir Hossain

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow