ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪
বাংলাদেশ জুট মিলস

আশার আলো দেখছে নরসিংদীবাসী



আশার আলো দেখছে নরসিংদীবাসী

ফের আশার আলো দেখছে দেশের অন্যতম রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাংলাদেশ জুট মিলস। অতিরিক্ত উৎপাদন ব্যায় ও ব্যাপক লোকসানে বন্ধের প্রায় ২০ মাস পর চালু হয়েছে নরসিংদীতে অবস্থিত সরকারি এ প্রতিষ্ঠান। মিলটি চালু করেছে দেশি-বিদেশি পাঁচ প্রতিষ্ঠানের যৌথ উদ্যোগ ‘জুট অ্যালায়েন্স লিমিটেড’।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে পাটকলটিতে সীমিত পরিসরে উৎপাদন শুরু হয়েছে। উৎপাদন শুরু করেছে জুট অ্যালায়েন্সের প্রধান দুই শেয়ারহোল্ডার বে গ্রুপ ও টিকে গ্রুপ। জোটের অন্য তিন প্রতিষ্ঠান হচ্ছে- হংকংভিত্তিক বেস্টলা লিমিটেড, তাইওয়ান শ্যু ম্যাটেরিয়ালস এবং বিএন ট্রেডিং। যুক্তরাষ্ট্র, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ এবং অন্যান্য দেশে ক্রমবর্ধমান রফতানি সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে তাদের এই উদ্যোগ।

বিনিয়োগ ৩০০ কোটি টাকা
কারখানায় ৩০০ কর্মসংস্থান
আশা ৩০০০ কর্মসংস্থানের
উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা দৈনিক ১০০ টন

জানা গেছে, প্রাথমিকভাবে কারখানাটিতে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করছে এই শিল্প জোট। ধাপে ধাপে বিনিয়োগ আরও বাড়বে। জোটটির কর্মকর্তারা জানান, কারখানাটিতে শতভাগ রফতানিমুখী ফুড গ্রেডেড পাটের ব্যাগ উৎপাদন করা হবে। প্রাচীন এই কারখানাটির যন্ত্রপাতির অবস্থা খুবই নাজুক ছিলো। বর্তমানে তার ৫০ শতাংশ সংস্কার করা হয়েছে। কর্মকর্তারা আরো জানান, ৩০০ কর্মী নিয়ে কারখানায় আংশিক উৎপাদন শুরু হয়েছে। নতুন মেশিনারিজ আমদানির পর পূর্ণাঙ্গ উৎপাদন শুরু হবে। তখন এখানে আড়াই হাজার থেকে ৩ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

জোট অ্যালায়েন্স লিমিটেডের কো-অর্ডিনেটর হাসান আরিফ জানান, গোটা বিশ্বে এখন পরিবেশবান্ধব পণ্যের চাহিদা আছে। বিশেষ করে ফুড গ্রেড পাটের ব্যাগ দিয়ে প্যাকেজ না করলে পশ্চিমা বিশ্ব খাদ্যপণ্য নিতে চায় না। এজন্য পাটকলটি সরকারের কাছ থেকে ২০ বছরের মেয়াদে লিজ নিয়ে দ্রুততার সাথে উৎপাদন শুরু করা হয়েছে। এই কারখানায় প্রতিদিন ১০০ টন পন্য উৎপাদন করা হবে। তাই নতুন ও আধুনিক মেশিনারিজ আমদানি করবে বে গ্রুপ।


   আরও সংবাদ